জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন অনলাইন আবেদন, সংশোধন করতে কি কি লাগে? Birth Certificate Correction Online

জন্ম নিবন্ধন এ ভূল হয় কেন? এবং কোন ধরনের ভূল হয়?

বিভিন্ন কারনে জন্ম নিবন্ধন সনদে বিভিন্ন ধরনের ভূল হয়ে যায়। ইতিপূর্বে যারা জন্ম জন্ম নিবন্ধন বানিয়েছেন তাদের অনেকেই শুধুমাত্র বাংলা জন্ম নিবন্ধন বানিয়েছেন। এক্ষেত্রে অনেকে ইংরেজি জন্ম নিবন্ধন না বানানোর কারণে অফিসের লোকেরা ইংরেজি তথ্য ইনপুট করে নাই অথবা করলেও বানালে ভুল করে ফেলেছেন।

যার কারণে পরবর্তীতে আমাদের যখন ইংরেজি জন্ম নিবন্ধন প্রয়োজন হয় অথবা সুরক্ষার টিকা নিবন্ধন করার প্রয়োজন হয় তখন জন্ম নিবন্ধনের সার্ভার থেকে আমাদের ইংরেজি তথ্য কালেক্ট করে সে ক্ষেত্রে আমাদের যে সমস্যাটা হয় সেটা হচ্ছে আমাদের ইংরেজি তথ্য জন্ম নিবন্ধনের ভুল ইনপুট থাকার কারণে সুরক্ষার টিকা নিবন্ধন করার সময় যখন জন্ম নিবন্ধন সার্ভার থেকে ইংরেজি তথ্য যাচাই করা হয় তখন আমাদের তথ্য ভুল থাকলে টিকার কার্ডে সেই ভুল তথ্য চলে আসে। 

তাই সুরক্ষার টিকা নিবন্ধন করার পূর্বে অথবা বিভিন্ন জায়গায় ইংরেজি তথ্য প্রয়োজন পড়ে সে ক্ষেত্রে আমাদের জন্ম নিবন্ধনটি সংশোধন করার প্রয়োজন পড়ে অথবা আরো অনেক কারণ রয়েছে যেমন আমরা যখন জন্ম নিবন্ধন নতুন করে করি তখন আমাদের পিতা মাতার নামের সাথে অনেক সময় মিল থাকে না সে ক্ষেত্রে আমাদের সংশোধন করতে হয়।

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন অনলাইন আবেদন, সংশোধন করতে কি কি লাগে? Birth Certificate Correction Online
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

এছাড়া আপনার জন্ম নিবন্ধন এর ইংরেজি ও বাংলা কপি যদি আপনার সার্টিফিকেট অথবা আপনার পিতা-মাতার ভোটার আইডি কার্ডের সাথে নাম মিল না থাকে তাহলে আপনার উচিত দ্রুত আপনার জন্মদিন সংশোধন করে নেওয়া কারণ এই কাগজগুলো অতি গুরুত্বপূর্ণ কাগজ তাই এগুলো যদি সংশোধন না করেন ভবিষ্যতে বড় ধরনের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 

জন্ম নিবন্ধন আমাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি ডকুমেন্ট। মানুষের জন্ম হওয়ার পরই তার সবচেয়ে প্রয়োজনীয় যে ডকুমেন্ট সেটি হচ্ছে জন্ম নিবন্ধন। আমরা সাধারণত ইউনিয়ন অথবা পৌরসভা অথবা উপজেলা  অফিস থেকে জন্ম নিবন্ধন তৈরি করি। অনেক সময় আমাদের তথ্য ভুল  লিপিবদ্ধ হয়ে যায় 

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে হবে সেটাই আজকের আলোচনার মূল বিষয়।

জন্ম নিবন্ধনের বিভিন্ন ধরনের ভুল পরিলক্ষিত হয় যেমন পিতা অথবা মাতার নাম সংশোধন করতে হয় আবার অনেক সময় নিজের নাম সংশোধন করতে হয় আবার অনেক সময় জন্ম তারিখ সংশোধনের প্রয়োজন পরতে পারে। 

See also  ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম, How to buy train Ticket Online, e ticket Railway gov bd

আমি সংক্ষেপে আপনাদের কে বুঝিয়ে দিচ্ছি কোন ধরনের ভুলের কারণে কোন ধরনের কাগজপত্র প্রয়োজন পড়তে পারে।

জন্ম হওয়ার পরপরই যদি জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করা হয় সেক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন সনদে ভুল হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে কারণ এটাই একজন মানুষের প্রথম ডকুমেন্ট

বর্তমানে প্রায় প্রত্যেকেরই জন্ম হওয়ার পরেই জন্ম নিবন্ধন তৈরি করতে হচ্ছে।

কিন্তু ইতিপূর্বে যারা জন্ম নিবন্ধন করেছেন তখন ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন ছিল না হাতে লিখা জন্ম নিবন্ধন ছিল যার কারণে এখন সেগুলোকে আবার ডিজিটাল ভাবে নতুন করে করতে হচ্ছে। অথবা অনেকেই ইতিপূর্বে জন্ম নিবন্ধন করেননি ক্লাস এইটে এসে অথবা এসএসসি পরীক্ষার পর বা অনেক বড় হয়ে জন্ম নিবন্ধন জন্ম নিবন্ধন তৈরি করেছেন সেই ক্ষেত্রে আপনার ইতিপূর্বে অনেক ডকুমেন্ট হয়ে গিয়েছে যেমন ক্লাস ফাইভ এর সার্টিফিকেট ক্লাস এইট এর তারপরে আপনার এসএসসি বা দাখিল এর সার্টিফিকেট এবং আপনার অনেকের ভোটার আইডি কার্ড হয়ে গিয়েছে। 

সে ক্ষেত্রে দেখা যায় যে আপনার জন্ম নিবন্ধন হওয়ার পর আপনি খেয়াল করলেন যে আপনার সার্টিফিকেটের সাথে আপনার নিজের নাম অথবা পিতা মাতার নাম মিলে না বা আপনার ভোটার আইডি কার্ডের সাথে মিলে না অথবা আপনার জন্ম নিবন্ধন এ আপনার পিতা মাতার যেই নাম রয়েছে সেই নামের সাথে মিল পড়ছে না সেই ক্ষেত্রে আপনার জন্ম নিবন্ধন টি সংশোধন করতে হচ্ছে।

জন্ম নিবন্ধন ভুল সংশোধনের জন্য আবেদন

সর্বপ্রথম আপনাকে জন্ম নিবন্ধনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে এবং নিচের ছবিতে দেওয়া জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের আবেদন করুন অপশনে ক্লিক করুন।

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে Birth Certificate Correction Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

এখানে আপনার জন্ম নিবন্ধন এর ১৭ ডিজিটের নম্বরটি প্রদান করুন।

তারপর আপনার জন্ম তারিখ কি সিলেক্ট করুন অথবা টাইপ করে লিখে দিন।

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে Birth Certificate Correction Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

তারপর অনুসন্ধান বাটনে ক্লিক করুন এখানে আপনার তথ্য দেখতে পারবেন । 

এখানে সব সঠিক থাকলে নির্বাচন করুন বাটনে ক্লিক করুন

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে Birth Certificate Correction Jonmo Nibondhon Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

পরবর্তী অপশনে আপনার ঠিকানা একে একে করে সিলেক্ট করে দিবেন দেশ বিভাগ জেলা উপজেলার পৌরসভা অথবা ইউনিয়ন তারপরে এখানে অফিসের নাম শো করবে তারপরে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করবেন। 

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে? Birth Certificate Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

তারপর আপনার জন্ম নিবন্ধন এর তথ্য সংশোধনের আবেদনের পেইজে নিয়ে আসা হবে।

এখানে বিষয় এ সিলেক্ট করবেন যে আপনি কি সংশোধন করতে চান।

যেমন আপনার নামের বাংলা এবং আপনার নামের ইংরেজি অংশ অথবা পিতা ও মাতা কত তম সন্তান বা আপনার লিঙ্গ ছেলে না মেয়ে অথবা পিতার নাম বাংলাতে সংশোধন করবেন নাকি ইংরেজিতে মাতার নাম বাংলা ও ইংরেজি ইত্যাদি বিভিন্ন তথ্য রয়েছে। আপনার যে ভুলগুলো রয়েছে জন্ম নিবন্ধন এর মধ্যে সেগুলো সিলেক্ট করবেন। 

See also  জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে কি কি লাগে? জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন করতে কি কি প্রয়োজন?
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে? Birth Certificate Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

সিলেক্ট করার পর যেটা সঠিক সেটা বসাবেন চাহিত সংশোধিত তথ্য এই ঘরের মধ্যে। তারপরে পরিবর্তনের কারণ সিলেক্ট করে দিবেন।

এভাবে আপনার যতগুলো ভুল রয়েছে সবগুলো একে একে সিলেক্ট করে দিবেন এবং সঠিকটা লিখে দিবেন তারপরে পরিবর্তনের কারণ সিলেক্ট করে দিবেন।

একটা একটা সিলেক্ট করবেন তারপর আরো তথ্য  সংযোজন করুন বাটনে ক্লিক করুন।

সবকিছু দেওয়া হয়ে গেলে তারপর আপনার জন্মস্থানের ঠিকানা এরপরে স্থায়ী ঠিকানা একে একে পূরণ করে দিতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম, সংশোধন করতে কি কি লাগে? Birth Certificate Correction
জন্ম নিবন্ধন ভূল সংশোধন করার নিয়ম

তারপর আবেদনকারীর তথ্য প্রদান করতে হবে এখানে আপনার অনেকগুলো অপশন রয়েছে আপনার বয়স ১৮ বছরের নিচে হলে এখানে পিতা অথবা মাতা এবং অন্যান্য তথ্য রয়েছে সেগুলো পূরণ করে দিবেন এবং বয়স যদি ১৮র উপরে হয় তাহলে নিজ সিলেক্ট করে দিবেন তারপর মোবাইল নাম্বার দিবেন।

আর এখানে দেখুন সংযুক্তি দিতে হবে সেক্ষেত্রে আপনার যে যেই তথ্যগুলো সংশোধন করবেন সেগুলোর বিপরীতে আপনাকে ডকুমেন্ট আপলোড করতে হবে ।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করতে কি কি লাগে

এখানে আপনার নামের সংশোধনের ক্ষেত্রে আপনার সার্টিফিকেট থাকলে সার্টিফিকেট অথবা টিকার কার্ড অথবা আপনার যদি অন্য কোন ডকুমেন্ট থাকে সরকারি সে ক্ষেত্রে সেগুলো আপলোড করবেন এবং আপনার পিতা মাতার নামের ভুল এর ক্ষেত্রে পিতা মাতার ভোটার আইডি কার্ড অথবা জন্ম নিবন্ধন কপি আপলোড করতে পারবেন। অন্যান্য তথ্য ভুল থাকলে সেই তথ্যের বিপরীতে সঠিক যে তথ্য‌ আছে সেগুলো সাবমিট করবেন। 

নিচে একটা লিস্ট দিলাম। এই লিস্ট অনুযায়ী সরকারি ভেরিভাইড ডকুমেন্ট আপলোড করতে পারবেন।

  1. পিতার জন্ম নিবন্ধন সনদ
  2. মাতার জন্ম নিবন্ধন সনদ
  3. পিতার জাতীয় পরিচয়পত্র
  4. মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র
  5. ই পি আই কার্ড
  6. স্থায়ী ঠিকানার প্রমাণ
  7. বর্তমান ঠিকানার প্রমাণ
  8. পিতার পাসপোর্টের স্ক্যান করা কপি
  9. মাতার পাসপোর্টের স্ক্যান করা কপি
  10. পিতার পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  11. মাতার পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  12. নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  13. নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির এস এস সি সার্টিফিকেটের স্ক্যান করা কপি
  14. পিতার মৃত্যুর প্রমাণ
  15. মাতার মৃত্যুর প্রমাণ
  16. নিবন্ধনাধীন ব্যাক্তির জাতীয় পরিচয়পত্র
  17. ইস্যু সম্পর্কিত ফাইল
  18. প্রাথমিক স্কুল সার্টিফিকেট (পিএসসি)
  19. অঙ্গীকারনামা
  20. নিবন্ধকের প্রত্যয়নপত্র
  21. হাতে লিখা বইয়ের সংশ্লিষ্ট পৃষ্ঠার সত্যায়িত কপি
  22. চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র বা চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান প্রদত্ত জন্ম সংক্রান্ত সনদের সত্যায়িত কপি বা পূরণকৃ্ত আবেদনপত্রে বার্থ এটেন্ডের এর প্রত্যায়ন বা ইপিআই কার্ডের সত্যায়িত অনুলিপি
  23. পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর দ্বারা স্বনামে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ঘোষিত আবাস স্থলের বিপরীতে হালনাগাদ কর পরিশোধের প্রমানপত্র বা পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট ঘোষিত স্থায়ী ঠিকানা বা জমি অথবা বাড়ি ক্রয়ের দলিল , খাজনা ও কর পরিশোধ রশিদ। (নদীভাঙ্গন অন্য কোন কারনে স্থায়ী ঠিকানা বিলুপ্ত হলে)
  24. চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র বা চিকিৎসা প্রতিষ্ঠান প্রদত্ত জন্ম সংক্রান্ত সনদের সত্যায়িত কপি বা পূরণকৃ্ত আবেদনপত্রে বার্থ এটেন্ডের এর প্রত্যায়ন বা ইপিআই কার্ডের সত্যায়িত অনুলিপি ।
  25. পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর দ্বারা স্বনামে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ঘোষিত আবাস স্থলের বিপরীতে হালনাগাদ কর পরিশোধের প্রমানপত্র বা পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট ঘোষিত স্থায়ী ঠিকানা বা জমি অথবা বাড়ি ক্রয়ের দলিল , খাজনা ও কর পরিশোধ রশিদ। (নদীভাঙ্গন অন্য কোন কারনে স্থায়ী ঠিকানা বিলুপ্ত হলে)
  26. জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি)
  27. হাতে লিখা সনদের কপি
  28. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির পিতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
  29. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
  30. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির পিতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
  31. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
  32. চিকিৎসক কর্তৃক প্রত্যায়ন পত্র (বাংলাদেশ মেডিক্যাল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল কর্তৃক স্বীকৃত এমবিবিএস বা তদূর্ধ্ব ডিগ্রিধারী) বা সরকার কর্তৃক পরিচালিত প্রথমিক শিক্ষা সমাপনী, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট এবং শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পরিচালিত মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট
  33. পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর দ্বারা স্বনামে স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ঘোষিত আবাস স্থলের বিপরীতে হালনাগাদ কর পরিশোধের প্রমানপত্র বা পিতা / মাতা/ পিতামহ / পিতামহীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা পাসপোর্ট ঘোষিত স্থায়ী ঠিকানা বা জমি অথবা বাড়ি ক্রয়ের দলিল , খাজনা ও কর পরিশোধ রশিদ। (নদীভাঙ্গন অন্য কোন কারনে স্থায়ী ঠিকানা বিলুপ্ত হলে)
  34. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির পিতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
  35. জন্ম নিবন্ধনাধীন ব্যক্তির মাতার জন্ম নিবন্ধন নম্বরসহ সনদ
এ ছাড়াও চেয়ারম্যান কর্তৃক ও রেজিষ্টার্ড চিকিৎসক কর্তৃক প্রত্যয়ন পত্র ও অন্যান্য ডকুমেন্ট জমা দিতে পারেন।

আর জন্ম নিবন্ধন সংশোধন এর আবেদন করার ক্ষেত্রে অনলাইনে কোনো ফি দিতে হয় না। তবে পরবর্তীতে সরকারি ভাবে যদি কোনো ফি এপ্লাই করা হয় সেই ক্ষেত্রে ফি প্রদান করতে হবে।

See also  দক্ষিণ কোরিয়া লটারি ২০২৩, দক্ষিণ কোরিয়া লটারি আবেদন ২০২৩ ‍eps. boesl.gov.bd

সকল কাজ সম্পুর্ণ করার পর আপনি পৌরসভা অথবা ইউনিয়ন পরিষদ এ গিয়ে আপনার কাগজপত্র ডকুমেন্ট সংযুক্ত করে জমা দিবেন। তারপর তারা আপনাকে নির্দিষ্ট এটা টাইমের মধ্যে আপনার তথ্য যাচাই করে সংশোধন টি গ্রহণ করবেন কিংবা অগ্রহণযোগ্য হলে বাতিল করবেন।